খেলাধুলা

প্রথম ম্যাচেই হারের কারণ খুঁজে পেলেন সাকিব!

এশিয়া কাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে আফগানিস্তানের বিপক্ষে

সম্ভাবনা জাগিয়েও হেরেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। রশিদ-নবীদের

অনেকটা ছোট লক্ষ্যমাত্রা ছুঁড়ে দিলেও ম্যাচের পুরোটা সময় লাগাম ছিলো সাকিব-মোসাদ্দেকদের হাতেই। তবে শেষদিকের দুই ওভারেই নিশ্চিত হয়ে যায় টাইগারদের পরাজয়। এমন হারের পর অবশ্য বোলারদের দুষছেন না সাকিব! ব্যাটিংয়ে দ্রুতু উইকেট হারানোয় ম্যাচের পার্থক্য গড়ে দিয়েছে বলে মনে করেন তিনি। দুর্বার শারজা স্টেডিয়ামে টস জিতে আগে ব্যাটিং নেন নতুন করে টি-টোয়েন্টি নেতৃত্বে আসা সাকিব। ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই নাঈমকে হারায়, এরপর বিজয়ও ফিরে যান দ্রতু। পরবর্তীতে সাকিব দলকে চাপ মুক্ত করার চেষ্টা করলেও ব্যর্থ হন। মাঝের সময় রিয়াদ-মোসাদ্দেকের জুটি আশা জাগালেও বড় করতে পারে নি দলের স্কোরবোর্ড। শেষদিকে মোসাদ্দেকের ব্যাটে ভর করে

১২৭ রান করে টাইগাররা। যদিও সাকিবের মতে ২৮ রানে ৪ উইকেট হারানোয় ম্যাচের পার্থক্য গড়ে দিয়েছে। এনিয়ে সাকিব ম্যাচ শেষে বলেন, ‘আসলে শুরুর দিকে আমরা দ্রুত উইকেট হারিয়েছি। আপনি যদি ৭ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে বসেন তাহলে ঘুরে দাঁড়ানো মুশকিল। বোলিংয়ে আমরা ভালো করেছি। শুরুর থেকে ১৪-১৫ ওভার পর্যন্ত আমরা ম্যাচে ছিলাম। আমরা জানতাম নাজিবউল্লাহ ভয়ঙ্কর ব্যাটার। ভেবেছিলাম ম্যাচ আমাদের হাতেই আছে কিন্তু ৬ ওভারে ৬০ সে নিয়ে ফেলেছে। তাকে কৃতিত্ব দিতেই হয়।’ দলের সবাই যখন ব্যর্থ ব্যাট হাতে তখন একাই লড়ে গেছেন মোসাদ্দেক। রশিদ-মুজিবদের বিপক্ষে ব্যাট হাতে খেলেছেন টি-টোয়েন্টি সুলভ এক ইনিংস। তাইতো ম্যাচ হারলেও পাচ্ছেন অধিনায়কের বাহবা। এটাও মানছেন আরো কিছু রান দরকার ছিল ম্যাচ জয়ের জন্য। সাকিব বলছিলেন, ‘টি-টোয়েন্টি ম্যাচে একজন ব্যাটারকে শেষ পর্যন্ত থাকতে হয়। মোসাদ্দেক সেটা করেছে, ভালো খেলেছে। কিন্তু ম্যাচ জেতার জন্য আমাদের আরও অনেক কিছু দরকার ছিল, যেটা হয়নি।’

Back to top button