শিক্ষা

৩০ মা’র্চ খুলছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, যে পদ্ধতিতে নেয়া হবে ক্লাস

আগামী ৩০ মা’র্চ থেকে স্কুল-কলেজ খোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। পর্যায়ক্রমে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো খোলা হবে। ৫ম, ১০ম ও ১২শ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের ক্লাস প্রতিদিন হবে। আর অন্যন্য শ্রেণির ক্লাস প্রথমে সপ্তাহে একদিন হবে। পরে তা দুই দিন হবে। আর পর্যায়ক্রমে স্বাভাবিক কার্যক্রম শুরু হবে।

আর প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শ্রেণির ক্লাস শুরু হলেও প্রাক প্রাথমিক শ্রেণির ক্লাস শুরু হচ্ছে না। শনিবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) অনুষ্ঠিত স্কুল-কলেজ খোলার জন্য পরিবেশ পর্যালোচনা করতে আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

শিক্ষামন্ত্রী ডা, দীপু মনি বলেন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো খোলার জন্য প্রস্তুত করা হয়েছে। আম’রা ৩০ মা’র্চের মধ্যে শিক্ষক কর্মচারীদের টিকার আওতায় নিয়ে আসবো। ১৭ই মের আগে ১ লাখ ৩০ হাজার বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীকে টিকা দেয়া হবে।

মন্ত্রী আরও বলেন, ১০ম ও ১২শ শ্রেণির ক্লাস সপ্তাহে ছয় দিন হবে। বাকি শ্রেণির ক্লাস প্রথমে সপ্তাহে একদিন হবে। পরে সপ্তাহে দুই দিন হবে। পর্যায়ক্রমে শিক্ষার্থীদের স্বাভাবিক কার্যক্রম শুরু হবে। রোজার ছুটি পুরো রোজা থাকবে না বলেও জানান শিক্ষামন্ত্রী। তিনি বলেন, রোজায়ও ক্লাস থাকবে। শুধু ঈদের সময় বন্ধ থাকবে।

এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের নিয়ে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, এই সময়ের মধ্যে নেয়া হবে সংস্কার ও সুরক্ষা ব্যবস্থা। আম’রা যখনই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলি এরপর ৬০ কর্ম’দিবস ক্লাস হয়েই এসএসসি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনির সভাপতিত্বে এ সভায়, স্বারষ্ট্রমন্ত্রী মো. আসাদুজ্জামান খান, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন, শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী, কৃষিমন্ত্রী মো. আব্দুর রাজ্জাক, তথ্যমন্ত্রী হাসান মাহমুদ ছাড়াও মন্ত্রিপরিষদ সচিব এবং দুই মন্ত্রণালয়ের সচিব এবং স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব, পু’লিশের আইজিসহ সংশ্লিষ্টরা বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

Back to top button