মোটা হতে গরুর ট্যাবলেট খেলো গৃহবধূ, এখন অবস্থা আশঙ্কাজনক

পটুয়াখালীর দশমিনায় মোটা হওয়ার জন্য গরুর মোটাতাজাকরণ ট্যাব’লেট খেয়ে মৃ’’ত্যুশ’য্যায় ফাসমাউন (২২) নামে এক গৃহবধূ। শুক্রবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে উপজে’লা

সদর ইউনিয়নের হাজিরহাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ফাসমাউন উপজে’লার হাজিরহাট এলাকার মো. আনিচুর রহমানের স্ত্রী এবং এক কন্যাসন্তানের জননী। হাসপাতাল ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ফাসমাউনের স্বামী খুলনায় একটি কোম্পানিতে চাকরি করেন। ওই গৃহবধূ শুক্রবার রাতের খাবার শেষে গরুর মোটাতাজাকরণ ট্যাব’লেট (একমি

কোম্পানির এ্যানোরা ভেট) খেয়ে ঘু’মাতে যান। কিছুক্ষণ পর ওই গৃহবধূ পেটে প্রচ’ণ্ড ব্য’থায় চি’ৎকার শুরু করেন। তার চিৎ’কারে শ্বশুরবাড়ির লোকজন তাকে দশমিনা হাসপাতালে ভর্তি করেন। শনিবার ফাসমাউনের অবস্থা আশ’ঙ্কাজ’নক হওয়ায় ক’র্তব্যরত চিকিৎসক তাকে বরিশাল শেবাচিমে প্রে’রণ করেন। ক’র্তব্যরত চিকিৎসক ডা. অনিক মিত্র জানান, রোগীর অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় বরিশাল শেবাচিমে প্রে’রণ করা হয়েছে। উপজে’লা প্রাণিসম্পদ কর্মক’র্তা ডা. আবু সায়েম আল সালাউদ্দিন জানান, গরুর মোটাতাজাকরণ ট্যাব’লেট মানুষে খেলে বি’ষক্রি’য়া’য় মৃ’’ত্যু’ পর্যন্ত ‘হতে পারে। এছাড়া হজমশ’ক্তি ভালো থাকলে পরবর্তীতে নানাবিধ রো’গে আ’ক্রা’’ন্ত ‘হতে থাকে।