ভালোবাসা দিয়ে সমালোচকদের জবাব দিলেন সেই টম ইমাম

সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাই’রাল হয় টম ই’মাম ও মিষ্টি ই’মাম নামের এক যুগলের বিয়েবার্ষিকী’র ছবি। স্বামী টমের স’ঙ্গে স্ত্রী’ মিষ্টির বয়সের

পার্থক্য এতোটাই বেশি, যা নিয়ে আলোচনা-সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে এ জুটিকে। তাই বি’ষয়টি নিয়ে বেশ বিব্রত বাংলাদেশি বংশোদ্ভূ’ত আ’মেরিকান নাগরিক টম

ই’মাম। গত ২৬ ডিসেম্বর ছিল তাদের বিয়েবার্ষিকী’। সেদিনসহ বিভিন্ন সময়ের ছবিসহ তিনি নিজের ফেসবুক আইডিতে এ নিয়ে পোস্ট দিয়েছেন। তাদের ছবি নিয়ে বাড়াবাড়ি না করার অনুরোধও করেছেন। ফেসবুক পোস্টে টম ই’মাম বলেন, স্ত্রী’র স’ঙ্গে আমা’র তোলা বেশকিছু ছবি আমা’দের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে নিয়ে অনেকেই ভাই’রাল করছেন। অনেকে খা’রাপ মন্তব্যও করেছেন। এগু’লো কি আপনাদের ঠিক হলো? ফেসবুকে তিনি আরও লিখেছেন, আমি আমা’র স্ত্রী’কে এবং সেও আমাকে ভালোবাসে।

ভালোবাসার কোনো বয়স নেই। দয়া করে আমি যেমন আপনার পরিবারকে শ্র’দ্ধা করি, তেমনি আপনিও আমা’দের শ্র’দ্ধা করুন। টম ই’মাম ২৩ ঘণ্টা আগে তার ফেসবুক আইডিতে সবশেষ যে স্ট্যাটাসটি দিয়েছেন সেটি হলো, ‘অ’স্ত্রের জো’রে আপনি সারা পৃথিবী জয় করতে পারেন কিন্তু একজন মানুষেরও মন জয় করতে পারবেন না।’ জানা গেছে, টম ই’মাম এর আগে এক আ’মেরিকান নারীকে বিয়ে করেছিলেন। সেই স্ত্রী’ প্রায় ১০ বছর অ’সুস্থ থাকার পর ২০১১ সালে মা’রা যান। ৮ বছর সন্তানদের কথা চিন্তা করে তিনি বিয়ে করেননি। এরপর ২০১৯ সালে টম ই’মাম বাংলাদেশি তরুণী মিষ্টিকে বিয়ে করেন। বিয়ের পর স্বামীর নামের স’ঙ্গে মিল রেখে নিজের নাম রাখেন মিষ্টি ই’মাম। বাংলাদেশি নাগরিক টম ই’মাম এইচএসসি পাস করেন পটুয়াখালী জুবেলি হাইস্কুল থেকে। এরপর ১৯৭৮-১৯৮২ শিক্ষাবর্ষে রাজধানীর শেরে বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে গ্র্যাজুয়েশন শেষ করে মা’র্কিন যু’ক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমান। বর্তমানে তিনি সেখানেই স্থায়ীভাবে বসবাস করছেন।